এবার কোভিড ভ্যাকসিনের তথ্য চুরির অভিযোগ রাশিয়ান হ্যাকারদের বিরুদ্ধে

বিশ্বজোড়া কোভিড মহামারী রুখতে পৃথিবীর প্রায় সব কয়টি দেশ ভ্যাকসিন তৈরিতে মগ্ন। এর মধ্যে অবশ্যই শিখরে রয়েছে ব্রিটেন, তাদের তৈরি চ্যাডক্স এর ফলাফল প্রকাশ হওয়ার কথা আজ, তবে এর মধ্যেই উঠে এল হ্যাকিং এর তথ্য। দিন কয়েক আগে ব্রিটেনের দাবি করে যে তাদের ভ্যাকসিন সংক্রান্ত তথ্য রাশিয়ান হ্যাকাররা চুরি করার চেষ্টা করছে, এবং তাতে মার্কিন এবং কানাডার গোয়েন্দা সংস্থারা সায় দেয়। তবে সেই অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করে রাশিয়া। ব্রিটেনে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আন্দ্রেই কালীন এর মতে এই অভিযোগ ভিত্তিহীন।

বৃটেনের ন্যাশনাল সাইবার সিকিউরিটি সেন্টার গত বৃহস্পতিবার দাবি করে যে তাদের ভ্যাকসিন সংক্রান্ত তথ্য হ্যাক করার জন্য তৎপরতা বাড়াচ্ছে কোন এক রাশিয়ান সংস্থা যারা “কোজি বেয়ার” ওরফে “দ ডিউকস” নামেও পরিচিত। বৃটেনের অভিযোগ এই হ্যাকারদের পিছনে আছে রাশিয়ার বর্তমান সরকারের। তবে এরা কতটা তথ্য চুরি করতে পেরেছে সেই নিয়ে ব্রিটিশ গোয়েন্দা দফতরের সন্দেহ রয়েছে। ভ্লাদিমির পুতিনের মস্কো এই অভিযোগ সরাসরি খারিজ করেছে। রাশিয়ার মতে এই অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই, এবং গবেষণাভিত্তিক তথ্য চুরি হ্যাকাররা সাধারণত করে না, আর উপযুক্ত তথ্য ও প্রমাণ ছাড়া একটা গোটা দেশকে দোষী সাব্যস্ত করতে বৃটেনের এই পদক্ষেপ যথেষ্ট নিন্দনীয়।

গত নভেম্বরে ব্রিটেনে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত হন আন্দ্রেই। ইতিমধ্যেই ব্রিটিশ বিদেশমন্ত্রী দমেনিক রাইব একটি সাক্ষাৎকারে বলেন যে বৃটেনের শেষ নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করার চেষ্টা করেছিল রাশিয়া, তবে আন্দ্রেই এর মতে বৃটেনের বাকি সমস্ত অভিযোগ এর মতই এই অভিযোগের কোনো ভিত্তি নেই, তিনি বলেন ” এই অভিযোগ ভিত্তিহীন, এবং রাশিয়া শুধু ব্রিটেন কেন বিশ্বের কোন দেশের নির্বাচনেই হস্তক্ষেপ করে না। রাশিয়া একটি দায়িত্বশীল দেশ এবং আমরা চাই দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে”।

বেশ কিছু বছর আগে বৃটেনের সোলসবেরিতে প্রাক্তন রুশ গুপ্তচর সেরিগেই স্ক্রিপাল এবং তার মেয়েকে রাসায়নিক দিয়ে হত্যা করার পিছনে অভিযোগ উঠেছিল রাশিয়ার বিরুদ্ধে, সেই প্রসঙ্গ টেনেই আন্দ্রেই বলেন “পুরানো প্রসঙ্গ ভুলে রাশিয়া চায় নতুন করে আবার সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে”।

Leave a Comment