ওরাকল-ওয়ালমার্টের হাত ধরে আমেরিকায় এবার টিকটক

টিকটকের সমস্ত আপডেট বন্ধ করেছিল আমেরিকা, কথা ছিল সম্ভবত নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি থেকে টিকটক ডাউনলোড এবং ব্যবহার বন্ধ করে দেবে মার্কিন সরকার। কিন্তু সম্প্রতি মার্কিন সংস্থা ওরাকল এবং ওয়ালমার্টের হাত ধরে টিকটক আবার যুক্তরাষ্ট্রে বেঁচে ওঠার স্বপ্ন দেখছে। হোয়াইট হাউস এর মতে ওরাক্যাল এবং ওয়ালমার্টের সাথে টিকটকের চুক্তি হলে তাতে সায় দেবে মার্কিন প্রশাসন। তবে … Read more

মোবাইল এপপ্স এর যুদ্ধে আমেরিকা-চীন

টিকটকের বিরুদ্ধে আগেই সরব হয়েছিল আমেরিকা, এবারে আরো একধাপ এগিয়ে উইচ্যাট বন্ধের নির্দেশ দিলো ট্রাম্প প্রশাসন। দেশের নিরাপত্তার অজুহাতে গত শুক্রবার টিকটক ডাউনলোড নিষিদ্ধ করা হয়েছে, এবারে উইচ্যাটও ডাউনলোড বন্ধ করাহল। তবে হোয়াইটহাউসের এই পদক্ষেপের কড়া নিন্দায় মুখর হয়েছে বেইজিং। তারা পাল্টা পদক্ষেপ নেওয়ার হুমকিও দিয়েছে। চীনের বাণিজ্যমন্ত্রী একটি বিবৃতিতে বলেন “আমেরিকা হুমকি দেওয়া বন্ধ … Read more

ট্রাম্পের নিশানায় এবার আলিবাবা

টিকটকের ওপর আঘাত হানার পর এবার ট্রাম্পের নিশানায় আলিবাবা। শনিবার এরকমই ইঙ্গিত দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তিনি জানিয়েছেন ” বিষয়টি ভেবে দেখছে হোয়াইট হাউস “। চলতি মাসের ৭ তারিখে নাগরিকদের নিরাপত্তার খাতিরে টিকটক নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মার্কিন সরকার। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বারবার চীনা অ্যাপগুলির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন, শনিবার তিনি জানান ” মার্কিন নাগরিকদের স্বার্থ সুরক্ষিত … Read more

টিকটক ব্যান করবে আমেরিকা

টিকটক থেকে চীন তথ্য চুরি করার প্রয়াস করছে সম্প্রতি এই অজুহাতে ভারত সরকার টিকটক কে ব্যান করেছে, এখন একই সুরে কথা বলছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সম্প্রতি একটি বিবৃতিতে তিনি জানান খুব শীঘ্রই আমেরিকা টিকটক ব্যান করবে কারণ টিকটক আমেরিকার নাগরিকদের তথ্য চুরি করছে। যদিও তিনি টিকটক ব্যান করার জন্য ২৪ ঘণ্টার সময়সীমা দিয়েছিলেন তবে … Read more

বন্ধ করা হলো ৫৯ টি চিনা অ্যাপ

লাদাখ সীমান্তে উত্তেজনা এবং তার সাথে চাইনিজ হ্যাকারদের বাড়াবাড়ির জন্য ভারত ব্যান করল ৫৯ টি চীনা মোবাইল অ্যাপ। নিচে দেখে নেওয়া যাক কোন কোন অ্যাপ গুলো এই তালিকায় আছে। টিকটক : বিনোদনমূলক ভিডিও বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছাড়ার এই অ্যাপটি ভারতে বিশেষ জনপ্রিয়। ভারতে এই অ্যাপটির ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১১ লক্ষেরও বেশি। ইউসি ব্রাউসার : ভারতে গুগল … Read more