করোনার দাপট ! চ্যালেঞ্জ কলকাতা

গত 24 ঘন্টায় রাজ্যে আক্রান্ত 58 জন যা এখনো পর্যন্ত একদিনের নিরিখে সর্বাধিক, এবং আক্রান্ত দের 80% কলকাতার নিবাসী। হাওড়া ও উত্তর 24 পরগনায় নতুন সংক্রমণ হার কিছু কমলেও বাড়ছে কলকাতায়। এর কারণ হিসেবে মুখ্যসচিব রাজীব সিংহ বলেন মূলত ঘিঞ্জি এলাকাই এর জন্য দায়ী, বিশেষ করে এসব এলাকার বাড়ির মধ্যে শারীরিক দূরত্ব রাখা সম্ভব নয় আর এটাই চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছে। লকডাউনে জরুরি পরিষেবা এবং বাজার খোলা রাখার কারণেও যে সংক্রমণ ছড়াতে পারে সেটাও তিনি জানান।

কলকাতায় উর্ধমুখী সংক্রমণ হারের মধ্যে ডাক্তার এবং নার্স সহ স্বাস্থ্য কর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার ধারা অব্যাহত। এদিন মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের একজন ইন্টার্ন ও পাঁচ সাফাই কর্মীকে বেলেঘাটা আইডি তে ভর্তি করা হয়, এদিকে শিয়ালদা সেন্ট্রাল মেডিকেল স্টোরের সংক্রমিত স্বাস্থ্যকর্তার স্ত্রীরও করোনা ধরা পড়েছে। আরজি কর এর এক সিটি স্ক্যান বিভাগের কর্মীর করোনা পসিটিভ হওয়ায় তাকে এমআর বাঙুরে পাঠানো হয়।

মুখ্যসচিব জানান চিকিৎসক এবং স্বাস্থকর্মীদের সুরক্ষার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে কারণ তারাই এই যুদ্ধের সর্বাগ্রে থাকা যোদ্ধা।

কোরোনার স্যাম্পল টেস্ট নিয়ে মুখ্যসচিব জানান এখন 12 টি পরীক্ষাগারে পরীক্ষা চলছে এবং প্রতিদিন গড়ে সেটি 900 টি পরীক্ষা করতে সক্ষম, কেন্দ্র পর্যাপ্ত কীট দিলে এই সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে। তিনি আরো জানান আক্রান্তদের 70% এর কোনো উপসর্গ নেই, এবং উপসর্গ আছে এমন রোগীর অধিকাংশের বয়স 40 থেকে 60 বা তারও বেশি।

Leave a Comment