এবার ভারতে ব্যান PUBG-সহ ১১৮ চিনা অ্যাপ!

এবার ভারতে ব্যান PUBG-সহ ১১৮ চিনা অ্যাপ!

নিজস্ব প্রতিবেদন, চিনা বাজারে আবার বড়সড় আঘাত আনল ভারত। বুধবার কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে জনপ্রিয় গেম পাবজি সহ ১১৮ টি চাইনিজ মোবাইল অ্যাপস নিষিদ্ধ করা হচ্ছে দেশে। এই আগে ৫৮টি চাইনিজ মোবাইল অ্যাপ ব্যান করে ডিজিটাল স্ট্রাইক করছ ভারত। এবার তার ডবল সংখ্যাক চাইনিজ অ্যাপ ভারতে ব্যান করা হল। যার ফলে ডিজিটাল বাজারে আবার বড়সড় ধাক্কা খেল চিন।চিনের সঙ্গে লাদাখে প্রথম সংঘাতের পর ২০ ভারতীয় সেনা শহিদ হওয়ার পরপরই বেজিংয়ের উপর ‘ডিজিটাল স্ট্রাইক’ চািলয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। প্রথমে ৫৯ টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার পর আরও ৪৭ টি চিনা অ্যাপকে ব্যান করে ভারত। জানা যায়, ওই ৪৭ টি অ্যাপ আগে থেকে ভারতে নিষিদ্ধ করা ৫৯টি চিনা অ্যাপের ক্লোন এবং লাইট ভার্সন। এরপরেই জল্পনা তৈরি হয়েছিল এরপর কি নিষিদ্ধ অ্যাপের তালিকায় আসতে চলেছে জনপ্রিয় গেম PUBG? সেই জল্পনা অবশেষে দূর হল, যখন ভারতের সঙ্গে ফের চিনের সংঘাত নতুন করে চরম আকার ধারন করেছে। এবার পাবজি-সহ মোট ১১৮টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করল ভারত সরকার

GOVERNMENT BLOCKS 118 MOBILE APPS WHICH ARE PREJUDICIAL TO SOVEREIGNTY AND INTEGRITY OF INDIA, DEFENCE OF INDIA, SECURITY OF STATE AND PUBLIC ORDER: GOVT OF INDIA

PUBG MOBILE NORDIC MAP: LIVIK, PUBG MOBILE LITE, WECHAT WORK & WECHAT READING ARE AMONG THE BANNED MOBILE APPS. PIC.TWITTER.COM/VWRG3WUNO8

— ANI (@ANI) SEPTEMBER 2, 2020

কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, PUBG ও ১১৮টি অ্যাপের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠছিল। তার মধ্যে অন্যতম ছিল তথ্য চুরি ও অ্যাপ ব্যবহারকারীদের উপর নজরদারি চালানো। এরপরই অ্যাপগুলি নিষিদ্ধ করল সরকার। দেশের তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৯এ- ধারায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের তরফে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, PUBG-সহ ১১৮টি অ্যাপ ভারতের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, প্রতিরক্ষা ও নাগরিকদের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বিপজ্জনক হয়ে উঠেছিল।”

পূর্ব লাদাখ সীমান্তে চড়তে থাকা উত্তেজনার পারদ চূড়ান্ত আকার নেয় গত ১৫ জুন। গালওয়ান সীমান্তে চিনা সেনার অতর্কিত হানায় শহিদ হন ২০ ভারতীয় জওয়ান। এরপর থেকেই চিনা পণ্য বয়কটের ডাক দেন দেশবাসী। চিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভের আগুন জ্বলে ওঠে। চিনকে ভাতে মারতে একাধিক পদক্ষেপ করে কেন্দ্র। চিনের বিভিন্ন সংস্থার একাধিক বরাত বাতিল করে রেল ও বিএসএনএল। এরপরই ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষিত হয়। এছাড়াও অ্যাপগুলি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস প্ল্যাটফর্মে পাওয়া কিছু মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনগুলির অপব্যবহার সম্পর্কে রিপোর্ট সহ ভারতের বাইরে অবস্থিত সার্ভারগুলিতে অননুমোদিত পদ্ধতিতে ব্যবহারকারীদের ডেটা প্রেরণ করার জন্য এবং অনিচ্ছুকভাবে বিভিন্ন অভিযোগ থেকে অনেক অভিযোগ পেয়েছে।

Leave a Comment